ডি মারিয়াকে নিয়ে শঙ্কা

ইনজুরির সঙ্গে লড়াই করেই কাতারে বিশ্বকাপ খেলতে নেমেছিলেন মেসির পর আর্জেন্টিনা দলের সবচেয়ে বড় তারকা অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। তবে আবারও সেই ইনজুরি যেন ঘুরে ফিরে আসছে।

ইনজুরির সঙ্গে লড়াই করেই কাতারে বিশ্বকাপ খেলতে নেমেছেন ডি মারিয়া।

তবে এমন মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে চাপে থাকার বদলে উল্টো আক্রমণাত্মক ফুটবলের পসরা সাজায় আর্জেন্টিনা। তাদের কাছে কোনো রকম পাত্তাই পায়নি পোল্যান্ড। অ্যালেক্সিস ম্যাক-অ্যালিস্টার ও হুলিয়ান আলভারেজের গোলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ ষোলোতে পা দিয়েছে ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টরা।

ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই তুলে নেয়া হয়েছিল ডি মারিয়াকে। প্রথমার্ধে ভালো সুযোগ তৈরি করা মারিয়াকে হঠাৎ উঠিয়ে নেয়ায় খটকা ছিল কিছুটা। চোটের শঙ্কা নয় তো! ম্যাচ শেষে কোচ লিওনেল স্ক্যালোনি সেই শঙ্কাটাই সত্যি করলেন যেন। জানালেন, ঊরুর পেশিতে অস্বস্তি অনুভব করছিলেন।

ম্যাচের ৫৯ মিনিটে ডি মারিয়াকে উঠিয়ে নেয়া প্রসঙ্গে আর্জেন্টাইন কোচ জানান, তাকে নিয়ে উদ্বেগ ছিল তাদের। তিনি বলেন, সে ঊরুর পেশিতে ব্যথা অনুভব করছিল তাই আমরা তাকে তুলে আনি। সবাই জানে সে গুরুত্বপূর্ণ। এমন একজনের খেলা চালিয়ে যাওয়া ঠিক নয়, যার আঘাত পাওয়ার শঙ্কা রয়েছে।

খাদের কিনারা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে মৃত্যুকূপে পরিণত হওয়া গ্রুপ ‘সি’র চ্যাম্পিয়ন হিসেবেই শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে দুবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। এর আগে গ্রুপ ‘ডি’র শেষ ম্যাচে ডেনমার্ককে ১-০ গোলে হারিয়ে শেষ ষোলো নিশ্চিত করে অস্ট্রেলিয়া। তবে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি তারা। যার ফলে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শেষ ষোলোতে দেখা হচ্ছে আর্জেন্টিনার।

আগামী শনিবার (৩ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামছে মেসি বাহিনী। আর তাই পুরোপুরি সেরে উঠতে মাঝে দুই দিনের মতো সময় পাচ্ছেন অভিজ্ঞ ডি মারিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.