দিনাজপুরে কলেজছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

দিনাজপুরে চয়ন কণ্ঠ (১৭) নামে এক কিশোরের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে ঘোড়াঘাট থানা পুলিশ। এর আগে সকালে নিজ ঘরের তীরের সঙ্গে মাফলারে ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান পরিবারের সদস্যরা।

দিনাজপুরে কলেজছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) সকালে উপজেলার ৪ নম্বর ঘোড়াঘাট ইউপির করঞ্জী গ্রামের নিজ ঘর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত ওই কিশোর করঞ্জী গ্রামের সজল কণ্ঠের ছেলে। সে কামদিয়া নুরুল হক ডিগ্রি কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ছিল। চার ভাই বোনের মধ্যে সে দ্বিতীয়।

পরিবার ও এলাকাবাসী জানায়, দুই বছর আগে চয়নের মা মারা যায়। সেই থেকে ছোট দুই ভাই ও বাবাকে নিয়ে একা হয়ে পড়ে সে। নিজে কলেজে যাওয়া। আবার কলেজ থেকে এসে ছোট দুই ভাই ও বাবার জন্য খাবার রান্না করে খাওয়াতো সে। তার বাবা মাসিক এক হাজার ৮০০ টাকা বেতনে স্থানীয় একটি কলেজের নিরাপত্তা প্রহরী হিসেবে কাজ করতো। সব মিলিয়ে অভাব অনটনে দিন কাটত তাদের।

নিহতের বড় চাচা রতন কণ্ঠ বলেন, ‘মানসিক বিকারগ্রস্ত হয়ে সে আত্মহত্যা করেছে। অন্য কোনো কারণ নেই। তার মা মারা যাওয়ার পর এই অল্প বয়সে পুরো সংসারের দায়িত্ব তার কাঁধে পড়ে যায়।’

মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে নিশ্চিত করে ঘোড়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু হাসান কবির বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ নেই। তার বাবা থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করেছে। সকলেই বলছে সে আত্মহত্যা করেছে। সুরতহাল রিপোর্টেও হত্যার কোনো আলামত মেলেনি। তাই সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে মরদেহ পরিবারকে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.