নেইমারকে নিয়ে নতুন দুঃসংবাদ

বিশ্বকাপ মিশনে নেইমার জুনিয়রকে নিয়ে যেন দুঃসংবাদের শেষ নেই। গোড়ালির ইনজুরিতে খেলতে পারেননি সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে। অনিশ্চয়তা আছে ক্যামেরুনের বিপক্ষে মাঠে নামা নিয়েও। এর মধ্যে ব্রাজিল শিবিরে নতুন দুশ্চিন্তা জ্বরে আক্রান্ত এ সেলেসাও তারকা।

কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সোমবার (২৮ নভেম্বর) ৯৭৪ স্টেডিয়ামে গ্রুপের দ্বিতীয় ম্যাচে সার্বিয়াকে ১-০ গোলে হারিয়েছে ব্রাজিল। এ ম্যাচে নেইমারের অনুপস্থিতি বেশ ভুগিয়েছে দলকে। ফর্মেশন সাজাতে ঝামেলায় পড়তে হয়েছে কোচ তিতেকেও।

সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে জিতলেও, নেইমারের অভাব হাড়ে হাড়েই টের পেয়েছেন এ সেলেসাও বস। সুইসদের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে তিতে বলেন, ‘নেইমার দলের অন্যতম একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। আর তার অভাব আমরা ম্যাচে অনুভব করেছি। আশা করি, অন্যরাও একদিন তার পর্যায়ে পৌঁছে যাবে।’

আরও পড়ুন: মেসির হাতে বাংলাদেশের পতাকা, এডিটেড?

এর আগে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে ৯৭৪ স্টেডিয়ামে ব্রাজিলের স্কোয়াডের সবাই উপস্থিত হয়েছিলেন একমাত্র নেইমার ছাড়া। গোড়ালির ইনজুরি থাকা সত্ত্বেও দলের আরেক সদস্য দানিলো ঠিকই মাঠে উপস্থিত থেকে দলে ক্যাসেমিরোদের জয় উদযাপন করেছেন। নেইমার কেন আসতে পারলেন না?

জবাবটা দিয়েছেন দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদ্য ভিনিসিয়ুস জুনিয়র। জানিয়েছেন, মাঠে আসার ইচ্ছে ছিল নেইমারের। কিন্তু জ্বরে আক্রান্ত হওয়ায় তার পক্ষে মাঠে আসা সম্ভব হয়নি।

ব্রাজিলিয়ান সংবাদমাধ্যম গ্লোবো এস্পোর্তেকে দেওয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ‘ মাঠে আসতে না পারায় সে খুবই হতাশ ছিল। তার শরীর খারাপ ছিল, শুধু পায়ের ইনজুরির কারণে নয়, তার মৃদু জ্বর ছিল। আশা করি, অতিদ্রুত সে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে।’

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে যে অনন্য রেকর্ড গড়ল ব্রাজিল

এর আগে গত ২৪ নভেম্বর সার্বিয়ার বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে নেইমারের গোড়ালি মচকে যায়। তখন তার বিশ্বকাপের বাকি ম্যাচগুলোতে খেলা নিয়েই দেখা দেয় শঙ্কা। তবে তিনি ধীরে ধীরে সেরে উঠছেন। ব্রাজিলিয়ান সংবাদমাধ্যমগুলোর তথ্য অনুযায়ী, শেষ ষোলো নিশ্চিত হওয়ায় ক্যামেরুনের বিপক্ষে ২ ডিসেম্বরের ম্যাচে নেইমারকে মাঠে নামিয়ে ঝুঁকি বাড়াবেন না কোচ তিতে। পুরোপুরি ফিট হয়ে নকআউট পর্বে তিনি দলের সঙ্গে যোগ দেবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.